Wednesday, 03 September 2014
Blue Grey Red

শেয়ার করুন

স্বাধীনতা আমাদের গৌরব সেই গৌরব ধরে রাখতে সকলকে ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে -আরিফুর রহমান সোহেল

স্টাফ রিপোর্টার ঃ  আমি গর্ববোধ করি আমি একজন বাঙ্গালী। আমি গর্বিত আমি মহান নেতা জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মজিবুর রহমানের ...

”ওয়ালটন” পণ্যের প্রতি আস্থা ফিরেছে দেশের কোটি মানুষের

৯০ দশকে সাংবাদিকতায় আসেন এনায়েত ফেরদৌস। দৈনিক রুপালী হয়ে বর্তমানে ইংরেজি দৈনিক নিউজ টুডে’র সিনিয়র সাব এডিটর। সেই...

প্রাণের পাঁচটি মসলা পরীক্ষার নির্দেশ হাইকোর্টের

এনিউজ২৪.নেটঃ প্রাণ অ্যাগ্রো লিমিটেড কোম্পানির মরিচ, আদা, জিরা, ধনিয়া ও রসুনের গুঁড়ায় মানবস্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর...

Joomla Templates and Joomla Extensions by JoomlaVision.Com

‘দেয়াল’: আদালতের নির্দেশনা ও লেখকের প্রতিশ্র“তি উপেক্ষিত


প্রসঙ্গ হুমায়ূন আহমেদের ‘দেয়াল’ উপন্যাস। এই উপন্যাসের প্রকাশনার ওপর আদালতের নির্দেশনা থাকলেও তা উপেক্ষা করার ঘটনা ঘটেছে। হুমায়ূন আহমেদ নিজেও উপন্যাসটির কিছু ত্রুটি বিচ্যুতির কথা স্বীকার করে তা সংশোধনের পরেই প্রকাশে প্রতিশ্র“তিবদ্ধ ছিলেন। তার মৃত্যুরপর সেই প্রতিশ্র“তি হয়েছে উপেক্ষিত।
রাজধানীর কারওয়ান বাজার থেকে প্রকাশিত একটি    দৈনিক তার গত শুক্রবারের সাময়িকীতে দেয়াল-এর আরও একটি অধ্যায় প্রকাশ করেছে। অথচ সুনির্দিষ্ট অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে  দেয়াল প্রকাশ না করার জন্য উচ্চ আদালতের নির্দেশনা রয়েছে। গত ১৫ মে মঙ্গলবার ওই নির্দেশনা দেন আদালত। এর আগে  দেয়ালের দুটি অধ্যায় প্রকাশ করে বিব্রতকর সূত্রপাত করে ওই দৈনিক।  বঙ্গবন্ধু হত্যা সম্পর্কিত ভুল তথ্য সংশোধন না করা পর্যন্ত জননন্দিত কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহম্মেদ তার ‘ ‘দেয়াল’ উপন্যাস প্রকাশ করবেন না,  নির্দেশনায় এমনটিই প্রত্যাশা করেছিলেন হাইকোর্ট। হাইকোর্টের এই প্রত্যাশাকে সম্মান দেখিয়েছিলেন হুমায়ূন আহম্মেদ নিজেও।
‘দেয়াল’-এ বঙ্গবন্ধু হত্যা সম্পর্কে কিছু ভুল তথ্য এবং ভুলভাবে ঘটনাটি উপস্থাপন করার অভিযোগ উঠলে বিষয়টি আদালতের নজরে এনেছিলেন স্বয়ং অ্যাটর্নি  জেনারেল মাহবুবে আলম।
সংশ্লিষ্টদের ধারণা, হুমায়ূন আহম্মেদের মৃত্যুরপর তার  লেখা এই অসমাপ্ত উপন্যাসটিই এখন পাঠকের বিপুল আগ্রহের কারণ হবে এবং তা বই আকারে ছাপা হয়ে  বের হলে  হটকেকের মতো বিক্রি হবে স্রেফ এমন মুনাফামুখি বিবেচনা  থেকেই দৈনিকটি আদালতকে উপেক্ষা করে আরও একটি অধ্যায় প্রকাশ করলো।  সেইসঙ্গে তারা চাইছে বিব্রতকর কেন্দ্র থেকে ফায়দা লুটতে। এ প্রসঙ্গে অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবু আলম জানান,  দৈনিক সম্পূর্ণ অনুচিত একটি কাজ করেছে। আদালতের নির্দেশনা থাকার কারণে ‘দেয়াল’ এর কোনো ধরনের প্রকাশনায় যাওয়া উচিত নয়।
হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুর পর দেয়াল কিভাবে প্রকশিত হতে পারে বা তার ভবিষ্যত কি হবে এ প্রশ্ন করা হলে  অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, বিষয়টি নিয়ে আলোচনার প্রয়োজন রয়েছে। দৈনিকটিতে প্রকাশিত দেয়াল’র নতুন  অংশ পড়ে এ নিয়ে বিস্তারিত কথা বলবেন বলেও জানান অ্যাটর্নি  জেনারেল মাহবুব আলম। উল্লেখ্য, দেয়ালের প্রথম দুটি অধ্যায় প্রকাশিত হওয়ার পর তা নিয়ে দেশজুড়ে ও দেশের বাইরে বাংলাভাষী মানুষের মধ্যে সমালোচনার ঝড় ওঠে। প্রকাশিত ওই দুটি অধ্যায়ে বঙ্গবন্ধু হত্যাকাণ্ড নিয়ে বিভিন্ন তথ্য ও প্রসঙ্গ ভুলভাবে আসার কারণেই মূলত সেই সমালোচনা। এ বিষয়টি গুরুত্বসহ গত ১৫ মে তা হাইকোর্টের নজরে আনেন অ্যাটর্নি জেনারেল। এতে স্বত.প্রণদিত হয়ে ওই দিনই প্রথমে বঙ্গবন্ধুর হত্যা সম্পর্কিত ভুল তথ্য সংশোধন না করা পর্যন্ত ‘দেয়াল’ উপন্যাস প্রকাশের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেন হাইকোর্ট। একইসঙ্গে ভুল সংশোধনের  নির্দেশ কেন দেওয়া হবে না তা জানতে  চেয়ে রুলও জারি করেন। বিচারপতি এএইচএম শামসুদ্দীন চৌধুরী ও বিচারপতি জাহাঙ্গীর হোসেন  সেলিমের ডিভিশন বেঞ্চ স্বতঃপ্রণোদিত হয়ে ওই আদেশ  দেন। দুপুরের দেওয়া নিষেধাজ্ঞা সংক্রান্ত আদেশটি সন্ধ্যায় সামান্য পরিবর্তন (রিভাইজ) করেন আদালত।  পরিবর্তিত আদেশে হাইকোর্ট বেঞ্চ বলেন, আদালত প্রত্যাশা করছে হুমায়ূন আহম্মেদ তার উপন্যাসে বর্ণিত তথ্যগত অসঙ্গতি ও বিভ্রান্তিগুলো দূর করে তাতে ইতিহাসের সঠিক ঘটনা চিত্রায়ন করবেন। ওই দিন আদালত বলেছিলেন, হুমায়ূন আহমেদ একজন শ্রদ্ধাভাজন ব্যক্তি। তিনি বর্তমানে দূরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত। তার ওপরে আদেশ দিয়ে তাকে আমরা বিব্রত করতে চাই না। আবার নতুন প্রজন্ম ভুল ইতিহাস জানুক  সেটাও চাই না। কারণ মীর  মোশাররফের বিষাদ সিন্ধুতে কারবালার ইতিহাস যেভাবে অতিরঞ্জিত করে বর্ণনা করা হয়েছে, মানুষ সে ইতিহাস  সেভাবেই জানে। এ কারণে আদালত শিক্ষা, তথ্য ও সংস্কৃতি সচিবকে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার রায় ও সাক্ষ্য-বিবরণ হুমায়ূন আহম্মেদের কাছে সরবরাহ করতে নির্দেশ দেন। যাতে তিনি ভুল সংশোধনের সুযোগ পান। বিষয়টি হয়ে ওঠে  সে সময়ের প্রধান আলোচ্য বিষয়।
আদালতের নির্দেশে বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার পেপারবুক হুমায়ূন আহমেদকে পাঠানো হয়। বিষয়টি নিশ্চিত করেন অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুব আলম। ২৯ মে দেয়া একটি সাক্ষাৎকারে মাহবুব আলম বলেন, “হুমায়ূন আহম্মেদের ওপর আমাদের আস্থা আছে। তার কাছে একটাই প্রত্যাশা, তিনি জাতির ইতিহাসের সবচেয়ে বিয়োগান্তক ঘটনাটিকে এমনভাবে তুলে ধরবেন যাতে জাতির চেতনা জাগ্রত হয়। মাহবুব আলম বলেছিলেন, হুমায়ূন আহম্মেদের পাঠক লাখ লাখ মানুষ। তার মধ্যে যুবক তরুণরাই বেশি। তাদের মধ্যে বই পড়ার আগ্রহ সৃষ্টিও করেছেন হুমায়ূন আহমেদ। এমন একজন লেখকের লেখা, যা হাজার লক্ষ পাঠক পড়বে তাতে কোনো ভুল তথ্য থাকলে তা গোটা সমাজকে প্রভাবিত করবে বলেই আমি মনে করি। বিষয়টি মেনে নিয়েছিলেন হুমায়ূন আহম্মেদ নিজেও। তিনি বলেছিলেন, “আদালতের নির্দেশ মেনে আমি আমার বইয়ে প্রয়োজনীয় সংশোধনী আনবো। সে লক্ষ্যে কাজ শুরু করেছি। বঙ্গবন্ধু হত্যা মামলার রায় সংক্রান্ত পেপারবুক হাতে পেয়েছেন এবং তা পড়তে শুরু করেছেন বলে জানিয়ে হুমায়ূন আহম্মেদ বলেছিলেন, “এটি একটি বিশাল নথি। খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে সময় নিয়ে পড়ছি। শেষ করতে সময় লাগবে।”
বইটি কবে নাগাদ সংশোধন করে প্রকাশ করা হতে পারে জানতে চাইলে জবাবে হুমায়ূন আহম্মেদ বলেছিলেন, “আদালত যে নির্দেশ দিয়েছেন তা অক্ষরে অক্ষরে পালনের চেষ্টা করবো। আই অ্যাম ল’ অ্যাবাইডিং সিটিজেন (আমি একজন আইন মান্যকারী নাগরিক)।”
এই ল’ অ্যাবাইডিং সিটিজেন এর অনেক আশা ছিলো ক্যান্সারের অপারেশনের পর সুস্থ হয়ে উঠে বইটি লেখার কাজ শেষ করবেন। কিন্তু তার সে ইচ্ছাপূরণ হয়নি। তিন দফা অপারেশনের পর একটি মরণব্যাধিতে আক্রান্ত হয়ে অস্ত্রোপচার -পরবর্তী ভাইরাস সংক্রমণের শিকার হয়ে কোটি ভক্তকে কাঁদিয়ে চলে যান হুমায়ূন আহম্মেদ।
এ অবস্থায় দেয়াল’র ভবিষ্যত কি হবে? সে প্রশ্ন অনেকের মধ্যে তৈরি হলেও কেউ তা সামনে আনেনি।  শোকের ধকল কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা চলছিলো। ঠিক  তেমনই একটি সময়ে হুমায়ূন আহমেদের মৃত্যুর এক সপ্তাহ পার না হতেই ওই দৈনিকটি প্রকাশ করলো  দেয়ালের আরও একটি অধ্যায়।
হুমায়ূন আহম্মেদের এই দেয়াল বিতর্ক হয়তো আরও দীর্ঘ সময় ধরে চলবে। তবে  তা প্রকাশের আগে আদালতের নিষেধাজ্ঞা বা হুমায়ূন আহম্মেদের ইচ্ছার দিকটিও বিবেচনায় রাখা পত্রিকাটির উচিত ছিলো বলেই মনে করছেন অনেকে।

শেয়ার করুন

Submit to Digg Submit to Facebook Submit to Google Bookmarks Submit to Stumbleupon Submit to Technorati Submit to Twitter Submit to LinkedIn

মতামত

ইদানিং হঠাৎ এক বুদ্ধিজীবী এবং দুষ্ট বান্দরের গল্প!

গোলাম মাওলা রনি: বিষয়টি প্রথমে আমি বুঝতেই পারিনি। যখন পারলাম তখন একটার পর একটা অদ্ভূত ঘটনা ঘটতে লাগলো। হঠাৎ করেই একদিন...

স্বাভাবিক মৃত্যুর নিশ্চয়তা চাই

হঠাৎ করেই যেন দেশে খুনের ঘটনা বেড়ে গেছে। বৃহস্পতিবার যুগান্তরে প্রকাশিত হয়েছে ৩৩টি খুনের খবর। প্রথম পৃষ্ঠায় ছাপা...

Joomla Templates and Joomla Extensions by JoomlaVision.Com

সাহিত্য-সংস্কৃতি

বাংলাদেশের সংস্কৃতি

  বাংলাদেশের সংস্কৃতি বলতে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ বাংলাদেশের গণমানুষের সাহিত্য, সংগীত, নৃত্য, ভোজনরীতি, পোষাক, উৎসব ইত্যাদির মিথষ্ক্রীয়াকে...

24 November 2013 Read more...
Joomla Templates and Joomla Extensions by JoomlaVision.Com

স্বাস্থ্য

প্রাকৃতিক ফ্যামিলি প্ল্যানিং

এনিউজ২৪.নেটঃ ন্যাচারাল বা প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে ফ্যামিলি প্ল্যানিং করা বেশ সুবিধাজনক। তিনভাবে ন্যাচারাল ফ্যামিলি প্ল্যানিং করা...

Read more...
Joomla Templates and Joomla Extensions by JoomlaVision.Com

লাইফস্টাইল

মালাইচপ

উপকরণ : স্পঞ্জ রসগোল্লা ১০টি, দুধ ১ লিটার, চিনি আধা কাপ, ঘি ১ টেবিল চামচ। যেভাবে তৈরি করবেন ১. দুধ জ্বাল দিয়ে ঘন করে এর মধ্যে চিনি দিন।...

Read more...
Joomla Templates and Joomla Extensions by JoomlaVision.Com

সম্পাদক: মোহাম্মদ মাসুদ, প্রধান সম্পাদক: এস,এম মাসুদ রানা
বার্তা সম্পাদক : মো: সেলিম কবির, ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : ইমরান চৌধুরী বাবু


 

একটি অন্যভিশন লি. এর প্রতিষ্ঠান

৯২,শহীদ মুক্তিযোদ্ধা ফারুক ইকবাল ও তসলিম সড়ক,৫ম তলা, ডিআইটি রোড,মালিবাগ রেলগেইট, ঢাকা -১২১
ফোন: +৮৮০১৫৫৬৬৩২৮০৭ (সম্পাদক), বার্তা সম্পাদক: +88-01712209796,
নিউজ সেল রুম:
+8801911912586 ;01919823280
;
01913505761 বিজ্ঞাপন বিভাগ: +88028318527
Email: anews24x7@gmail.com,
anews24x7@ymail.com, editoranews24@gmail.com